আকবর

From ইসলামকোষ
Jump to navigation Jump to search
আকবর
আকবর দ্যা গ্রেট
Portrait of Akbar by Manohar.jpg
মনোহার দ্বারা ১৬ শতকের শেষ ভাগে আঁকা আকবরের প্রতিকৃতি
৩য় মোঘল সম্রাট
রাজত্ব ১১ ফেব্রুয়ারি ১৫৫৬ – ২৭ অক্টোবর ১৬০৫[১][২]
রাজ সিংহাসনারোহণ ১৪ ফেব্রুয়ারি ১৫৫৬[১]
পূর্বসূরী হুমায়ুন
উত্তরসূরী জাহাঙ্গীর
রাজপ্রতিভূ বৈরাম খাঁ (১৫৫৬–১৫৬১)
জন্ম জালাল উদ্দিন মোহাম্মদ আকবর
(১৫৪২-১০-১৫)১৫ অক্টোবর ১৫৪২[ক]
মৃত্যু ২৭ অক্টোবর ১৬০৫(১৬০৫-১০-২৭) (৬৩ বছর)
ফহেতপুর সিক্রি, আগ্রা
সমাধি সিকান্দ্রা, আগ্রা
পত্নীগণ মারিয়াম-উজ-জামানি বেগম
রুকাইয়া সুলতান বেগম
সেলিমা সুলতান বেগম
বেগম রাজ কানয়ারি বাই
বেগম নাথি বাই
কুশমিয়া বানু বেগম
বিবি দৌলত শাদ বেগম
রাজিয়া সুলতান বেগম
আরোও পাঁচজন স্ত্রী
বংশধর হাসান
হুসাইন
জাহাঙ্গীর
মুরাদ
দানিয়েল
আরাম বানু বেগম
শাকার-উন-নিসা বেগম
শেহজাদী খানুম
পূর্ণ নাম
মির্জা আব্দুল-ফথ জালাল উদ্দিন মোহাম্মদ আকবর
রাজবংশ মোঘল রাজবংশ
পিতা হুমায়ুন
মাতা হামিদা বানু বেগম
ধর্ম দ্বীন ই এলাহি<ref>Eraly, Abraham (২০০০)। Emperors of the Peacock Throne : The Saga of the Great Mughals। Penguin books। পৃষ্ঠা 189। আইএসবিএন 9780141001432 </refদীন-ই-ইলাহি
জালাল উদ্দিন মোহাম্মদ আকবর

জালাল উদ্দিন মোহাম্মদ আকবর ভারতবর্ষের সর্বশ্রেষ্ঠ শাসক।পৃথিবীর ইতিহাসে মহান শাসকদের অন্যতম মহামতি আকবর নামেও পরিচিত। তিনি মুঘল সাম্রাজ্যের তৃতীয় সম্রাট। পিতা সম্রাট হুমায়ুনের মৃত্যুর পর ১৫৫৬ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে আকবর ভারতের শাসনভার গ্রহণ করেণ। বৈরাম খানের তত্ত্বাবধানে তিনি সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ার সাম্রাজ্য বিস্তার করতে থাকেন। ১৫৬০ সালে বৈরাম খাঁকে সরিয়ে আকবর নিজে সকল ক্ষমতা দখল করেন। কিন্তু আকবর ভারতবর্ষআফগানিস্তানে তার সাম্রাজ্য বিস্তার চালিয়ে যান। ১৬০৫ সালে তার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত প্রায় সমস্ত উত্তর ভারত তার সাম্রাজ্যের অধীনে চলে আসে। আকবরের মৃত্যুর পর তার পুত্র সম্রাট জাহাঙ্গীর ভারতবর্ষের শাসনভার গ্রহণ করেন।

পারিবারিক জীবন[edit | edit source]

যোঁধা বাঈ

সাম্রাজ্যের রাজপুতদের সাথে সুসম্পর্ক রাখার স্বার্থে আকবর বিভিন্ন রাজবংশের রাজকন্যাদের বিয়ে করেন। তবে তার স্ত্রীদের মধ্যে সবচাইতে আলোচিত হলেন যোঁধা বাঈ[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

আকবরের শাসনকাল[edit | edit source]

আমলাতন্ত্র[edit | edit source]

রাজ্য শাসনের জন্য আকবর আমলাতন্ত্র চালু করেন এবং প্রদেশগুলোকে স্বায়ত্বশাসন দান করেন। আকবরের আমলাতন্ত্র বিশ্বের সবথেকে ফলপ্রসু আমলাতন্ত্রের মধ্যে অন্যতম। তিনি প্রত্যেক অঞ্চলে সামরিক শাসক নিয়োগ দেন। প্রত্যেক শাসক তার প্রদেশের সেনাবাহিনীর দায়িত্বে ছিল। ক্ষমতার অপব্যবহারের শাস্তি ছিল একমাত্র মৃত্যুদন্ড

অর্থনীতি[edit | edit source]

রাজপুতদের সাথে সম্পর্ক[edit | edit source]

আকবর বুঝতে পেরেছিলেন, যে রাজপুতরা শত্রু হিসাবে প্রবল, কিন্তু মিত্র হিসাবে নির্ভর। আকবরের শাসনকালে তিনি রাজপুতদের সাথে সন্ধি করার প্রয়াস করেছিলেন। কিছুটা যুদ্ধের দ্বারা, এবং অনেকটাই বিবাহসূত্রের দ্বারা তিনি এই প্রয়াসে সফল হয়েছিলেন। অম্বরের রাজা ভর মল্লের কন্যা জোধাবাঈ-এর সাথে তার বিবাহ হয়। ভর মল্লের পুত্র রাজা ভগবন দাস আকবরের সভায় নবরত্নের একজন ছিলেন। ভগবন দাসের পুত্র রাজা মান সিংহ আকবরের বিশাল সেনাবাহিনীর প্রধান সেনাপতি ছিলেন। রাজা টোডর মল্ল ছিলেন আকবরের অর্থমন্ত্রী। আরেক রাজপুত, বীরবল, ছিলেন আকবরের সবচেয়ে কাছের বন্ধু ও প্রিয়পাত্র। বেশিরভাগ রাজপুত রাজ্য যখন আকবরের অধীনে চলে আসছে, তখন একমাত্র মেওয়ারের রাজপুত রাজা মহারানা উদয় সিংহ মুঘলদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন। চিতোরের পতনের পর তিনি উদয়পুর পালিয়ে গিয়েছিলে এবং সেখান থেকে রাজপুতদের একত্রিত করতে চেষ্টা করেন। তার পুত্র মহারানা প্রতাপ সিংহ সারা জীবন মুঘলদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে গেছিলেন।প্রতাপ আকবরের আনুগত্য মেনে না নিলেও, চিত্ত্বর দুর্গে আকবর আক্রমণ করার পর তারা পালিয়ে যায় এবং আর কখনো রাজ্য স্থাপন করতে পারে নি। এবং রাজপুতদের কখন একত্রিতও করতে পারেননি। এছাড়াাও প্রতাপ সিং চিত্ত্বর দুর্গ পুনঃরুদ্ধার করতে পারেন নি। মেওয়ারের রাজপুতরাই একমাত্র রাজপুত জাত যারা রাজ্য হারিয়ে ভিখারি হয়েছে তবুও আকবরের প্রতি আনুগত্য মেনে নেয় নি।

বাংলা শাসন ব্যবস্থা[edit | edit source]

আকবরের ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গি[edit | edit source]

আকবর তার নিজস্ব ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গী থেকে দীন-ই-ইলাহি নামক ধর্ম চালু করার চেষ্টা করেন।

স্থাপত্য[edit | edit source]

আকবরের নবরত্ন সভা[edit | edit source]

আকবরের সভাসদ দের মধ্যে নবরত্ন হিসেবে যারা ইতিহাসখ্যাত হয়ে আছেন,

মোঘল সম্রাটদের উদ্দিন উপাধি গ্রহনের কারণ[edit | edit source]

উদ্দিন (উপাধি) এই পাতাটি পড়ুন।

তথ্যসূত্র[edit | edit source]

  1. Eraly, Abraham (২০০৪)। The Mughal Throne: The Saga of India's Great Emperors। Phoenix। পৃষ্ঠা 115, 116। আইএসবিএন 9780753817582 
  2. "Akbar (Mughal emperor)"। Encyclopedia Britannica Online। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৩ 
  3. Smith 1917, পৃ. 18–19
  4. "Akbar"। The South Asian। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০০৮ 

বহিঃসংযোগ[edit | edit source]

পূর্বসূরী:
সম্রাট হুমায়ুন
মুঘল সম্রাট
১৫৫৬১৬০৫
উত্তরসূরী:
সম্রাট জাহাঙ্গীর


Cite error: <ref> tags exist for a group named "lower-alpha", but no corresponding <references group="lower-alpha"/> tag was found, or a closing </ref> is missing